জন্ম নিবন্ধন বাংলা থেকে ইংরেজি করবো কিভাবে

আসসালামু আলাইকুম প্রিয় দরিদ্র আইটি কমিউনিটি, কেমন আছেন সবাই..? আশা করি আল্লাহর রহমতে সকলেই ভালো আছেন। বরাবরের মতো আজকেও হাজির হয়েছি নতুন একটি বিষয় নিয়ে লেখার জন্য। আজকের আর্টিকেলের বিষয় কিভাবে জন্ম নিবন্ধন বাংলা থেকে ইংরেজি করবেন, এবং অনলাইনে জন্ম নিবন্ধন কিভাবে সংশোধন করবেন।

জন্ম নিবন্ধন বাংলা থেকে ইংরেজি আবেদন

জন্ম নিবন্ধন হলো একটা মানুষের প্রাথম রাষ্ট্রীয় স্বীকৃতি, একজন মানুষের জন্ম নিবন্ধন থাকা মানে হচ্ছে রাষ্ট্র তাকে স্বীকৃতি দিচ্ছে যে সে এই রাষ্টে জন্মগ্রহণ করেছে। এই জন্ম নিবন্ধন প্রমাণ দেয় যে এই শিশু এই রাষ্ট্রের ভবিষ্যৎ নাগরিক। এবং তাকে রাষ্ট্রের স্বীকৃত সকল সুযোগ সুবিধা দিতে সরকার বদ্ধপরিকর। যেকোনো রাষ্ট্রের নাগরিকের প্রথম নাগরিকত্ব প্রমাণপত্র হলো জন্ম নিবন্ধন বা জন্ম সনদ, তারপর যখন এই নাগরিক ১৮ বছর অতিক্রম করে তখন সে দেশের একজন ভোটার হিসেবে গণ্য হয় এবং তার নাম ভোটার তালিকায় সংযুক্ত করা হয়। ভোটার তালিকায় যুক্ত হওয়ার সাথে সাথে সে জাতীয় পরিচয় পত্র বা এনআইডি কার্ড পাওয়ার যোগ্যতা অর্জন করে।

জন্ম নিবন্ধন বাংলা থেকে ইংরেজি

জন্ম নিবন্ধন আবেদনের সময় কিছু ডকমেন্ট প্রয়োজন হবে।

  • আবেদনকারীর জাতীয় পরিচয় পত্র যদি থাকে।
  • আবেদনকারীর শিক্ষাগত যোগ্যতার সনদ।
  • আবেদনকারীর পিতা মাতার জন্ম নিবন্ধন।

যারা ইতিমধ্যে জন্ম নিবন্ধন অনলাইন করেছেন, এবং আপনার জন্ম নিবন্ধনটি অনলাইনে আছে এই আর্টিকেলটি তাদের জন্য। অনেকে ইউনিয়ন পরিষদ থেকে জন্ম নিবন্ধন অনলাইন করেছেন বেশিরভাগ জন্ম নিবন্ধন বাংলায় করা হয়ে থাকে। আমাদের আজকের আর্টিকেলের বিষয় কিভাবে এই বাংলা জন্ম নিবন্ধন আপনি অনলাইনে ইংরেজি করে নিবেন। এবং আপনার জন্ম নিবন্ধন ভুল থাকে সেটা কিভাবে অনলাইনে সংশোধন করবেন চলুন দেখে নেয়া যাক।
বাংলা জন্ম নিবন্ধন ইংরেজি করার জন্য প্রথমে এই ওয়েবসাইটে যাবেন, ওয়েবসাইটটিতে প্রথমে একটি নোটিশ দেখতে পাবেন, নোটিশ টি দেখতে নিচের স্ক্রিনশটের মত। অবশ্যই নোটিশ টি খুব ভালোভাবে পড়ে বুঝে নিবেন। 

জন্ম নিবন্ধন সংশোধন অনলাইন


জন্ম নিবন্ধন সংশোধন অনলাইন

ওয়েবসাইট থেকে এই লিংকে ঢুকার পর আপনার সামনে যে পেজ ওপেন হবে সেখানে আপনার পূর্বের নিবন্ধিত যে জন্ম নিবন্ধন নাম্বার এবং জন্ম তারিখ দিয়ে অনুসন্ধান বাটনটিতে ক্লিক করুন। ক্লিক করার পর নিচে আপনি দেখতে পাবেন যে আপনার জন্ম নিবন্ধন কে অনলাইন করা আছে এবং সেটি কি বাংলায় আছে না ইংরেজিতে আছে সেটি লেখা দেখা যাবে যদি আপনার পূর্ব থেকে ইংরেজিতে পড়া থাকে সেক্ষেত্রে আপনার নতুন করে ইংরেজিতে করার কোন প্রয়োজন নেই। যদি আপনার জন্ম নিবন্ধন কে ইংরেজি করা না থাকে সেক্ষেত্রে আপনি নির্বাচন করুন নামে একটি নীল বাটন দেখতে পাবেন, সেখানে ক্লিক করুন সেখানে ক্লিক করার পর আপনার সামনে নতুন একটি পেজ ওপেন হবে যেখানে আপনার জন্ম নিবন্ধনের সকল তথ্য দেখতে পাবেন এখান থেকে চাইলে আপনি ইংরেজি ভার্সন তৈরি করতে পারবেন অথবা যদি কোন ভুল থাকে সেটা সংশোধন করতে পারবেন।

জন্ম নিবন্ধন সংশোধন

যাদের জন্ম নিবন্ধন অনলাইনে ইংরেজি করার নেই তাদের অনলাইনে যে তথ্যগুলো দেখাবে সেখানে শুধু বাংলা তথ্যগুলোই থাকবে সে ক্ষেত্রে আপনাকে অবশ্যই ইংরেজি তথ্য গুলো এড করে নিতে হবে। তথ্য সংশোধনের সময় অবশ্যই মনে রাখবেন আপনার পিতা-মাতার জন্মনিবন্ধন নাম্বার এবং ভোটার আইডি কার্ডের নাম্বার সহ সকল তথ্য দিতে হবে। এবং আপনি চাইলে সংশোধনের সময় আপনার শিক্ষাগত যোগ্যতার সনদ গুলো সংযোজন করে দিতে পারবেন একই সাথে রক্তের গ্রুপ ও সংযোজন করে দেয়া যাবে। জন্ম নিবন্ধন অনলাইন সংশোধনের সময় যে সকল ডকুমেন্ট সংযোজন করবেন সেগুলো আপলোড দেয়ার ক্ষেত্রে অবশ্যই মনে রাখবেন তা যেন সর্বোচ্চ ৫০ থেকে ৬০ কেবি মধ্যে থাকে এর বেশি যেন না হয়। এবং ডকুমেন্ট সংযোজন এর সময় কি ডকুমেন্ট সংযোজন করছেন সেটি অবশ্যই উল্লেখ করে দিবেন।

জন্ম নিবন্ধন অনলাইন এবং জন্ম নিবন্ধন সংশোধনের ক্ষেত্রে অবশ্যই সরকারের নির্ধারিত ফি পরিশোধ করতে হবে। জন্ম নিবন্ধন সংশোধন ফ্রিজ যদি আপনি সরাসরি ইউনিয়ন পরিষদে গিয়ে জমা দিন সে ক্ষেত্রে অনলাইনে পরিষদ অপশনটি সিলেক্ট করবেন। আর যদি এটি আপনি চালান ফরম অথবা ব্যাংকের মাধ্যমে পরিশোধ করতে চান সে ক্ষেত্রে দ্বিতীয় অপশনটি সিলেক্ট করে দেবেন।

অনলাইনে জন্ম নিবন্ধন সংশোধন করার পর সকল তথ্য যথাযথভাবে পূরণ হয়েছে কিনা সেটি যাচাই করে সাবমিট করার পর একটি প্রিন্ট কপি আপনাকে ডাউনলোড করতে দেয়া হবে অবশ্যই সেই প্রিন্ট করে ইউনিয়ন কমপ্লেক্সে জমা দেবেন। প্রিন্ট কপি টি জমা দেয়ার সময় অবশ্যই তার নিচে অথবা প্রিন্টে কপির অপর পৃষ্ঠায় আপনার ফোন নাম্বারটি দিয়ে দিবেন যাতে করে আপনার জন্ম নিবন্ধনটি ইংরেজিতে কনভার্ট হয়ে যাওয়ার পর আপনার কাছে তারা কনফার্মেশন মেসেজটা পাঠাতে পারে। মেসেজ আসলে ইউনিয়ন পরিষদ থেকে আপনার ইংরেজি ভার্সনের জন্ম নিবন্ধনটি সংগ্রহ করবেন।

বিশেষ বার্তা:- যদি আপনি ইন্টারনেট ব্রাউজিং এ পারদর্শী হয়ে থাকেন এবং সকল তথ্য সঠিকভাবে পূরণ করতে সক্ষম হন, তবেই আপনি নিজে অনলাইনে জন্ম নিবন্ধন সংশোধন করবেন। অন্যথায় অভিজ্ঞ কাউকে দিয়ে করানোর চেষ্টা করবেন যেন এটিকে দ্বিতীয়বার সংশোধন করতে না হয়। 

প্রিয় পাঠক আশা করি আজকের এই আর্টিকেলটি আপনার ভালো লেগেছে, এই আর্টিকেলে যদি কোন ধরনের তথ্য ভুল কিংবা বাদ পড়ে থাকে অবশ্যই মন্তব্য করে আমাদের জানাবেন আমরা সংশোধন করার চেষ্টা করবো। 

Doridro IT

Hey, I am Ismail , Founder of DoridroIT.com Welcome To The DoridroIT Website. facebook youtube instagram twitter

নবীনতর পূর্বতন