বিকাশ একাউন্ট খোলার নিয়ম ২০২২।

বিকাশ একাউন্ট খোলার নিয়ম।

নতুন বিকাশ একাউন্ট খোলা একদম সিম্পল ! বর্তমানে সকল এয়ারটেল, বাংলালিংক, টেলিটক, গ্রামীণফোন এবং রবি গ্রাহকগণ বিকাশ একাউন্ট খুলতে পারবেন নিজের ফোন থেকেই! বিকাশ অ্যাপ ডাউনলোড করে অ্যাপ থেকেই ঘরে বসে একাউন্ট খুলতে পারবেন নিচের ধাপগুলো অনুসরণ করে।

বিকাশ হেল্প লাইন নাম্বার

অ্যাপ থেকে নতুন একাউন্ট খুলতে নিচের ধাপগুলো অনুসরণ করুন।

১. লগ ইন/রেজিস্ট্রেশন এ ট্যাপ করুন।

২. রেজিস্ট্রেশন করার জন্য মোবাইল নাম্বারটি দিয়ে পরবর্তী ধাপে যান।

৩. মোবাইল অপারেটর সিলেক্ট করুন।

৪. আপনার মোবাইল নাম্বারে এসএমএস এ আসা ভেরিফিকেশন কোড দিন।

৫. নিয়ম ও শর্তসমূহ দেখে নিয়ে সম্মতি দিন।

৬. রেজিস্ট্রেশন শুরু করার জন্য আপনার জাতীয় পরিচয়পত্রের ছবি তুলতে হবে।

৭. জাতীয় পরিচয়পত্রের সামনের অংশটি ফ্রেমের মধ্যে রেখে ছবি তুলুন।

৮. ছবি স্পষ্ট কিনা দেখে কনফার্ম করুন।

৯. এবার জাতীয় পরিচয়পত্রের পেছনের অংশটি ফ্রেমের মধ্যে রেখে ছবি তুলুন।

১০. ছবি স্পষ্ট কিনা দেখে কনফার্ম করুন।

১১. আপনার জাতীয় পরিচয়পত্রের তথ্যগুলো সঠিক আছে কি না দেখে পরবর্তী ধাপে যান।

১২. স্ক্রিনে আসা তথ্যগুলো পূরণ করে পরবর্তী ধাপে যান।

১৩. পর্যাপ্ত আলোতে ক্যামেরায় নিজের ছবি তুলতে হবে।

১৪. নিজের ছবি তুলে স্বয়ংক্রিয় স্ক্যানিং এর জন্য অপেক্ষা করুন।

১৫. রেজিস্ট্রেশনের সকল তথ্য সাবমিট করার জন্য নিশ্চিত করুন।

১৬. কনফার্মেশন এসএমএস এর জন্য অপেক্ষা করুন, এসএমএস পেলে লগ ইন করুন।

১৭. লগ ইন অপশনে ট্যাপ করুন।

১৮. মোবাইল নাম্বারটি দিয়ে পরবর্তী ধাপে যান।

১৯. মোবাইল অপারেটর সিলেক্ট করুন।

২০. আপনার মোবাইল নাম্বারে এসএমএস এ আসা ভেরিফিকেশন কোড দিন।

২১. এবার আপনার বিকাশ একাউন্টের পিন নাম্বার সেট করতে হবে।

২২. পিন নাম্বার সেট করার নির্দেশনা দেখে নিন।

২৩. ৫ ডিজিটের পিন নাম্বার দুইবার দিয়ে কনফার্ম করুন।

২৪. এবার আপনার মোবাইল নাম্বার ও পিন নাম্বার দিয়ে বিকাশ একাউন্টে লগ ইন করুন

২৫. আপনার নাম সেট করুন।

২৬. (+) আইকনে ট্যাপ করে আপনার প্রোফাইলের ছবি আপলোড করুন।

২৭. আপনার বিকাশ একাউন্টটি সক্রিয় হয়ে গেছে, প্রয়োজনীয় লেনদেন শুরু করুন।

ডিজিটাল রেজিস্ট্রেশন পয়েন্টে ই-কেওয়াইসির মাধ্যমে একাউন্ট খুলুন।


নিকটবর্তী ডিজিটাল রেজিস্ট্রেশন পয়েন্টে বিকাশ একাউন্ট খুলতে নিয়ে আসুন।

১। মোবাইল ফোন।
২। জাতীয় পরিচয়পত্রের মূল কপি।
পদ্ধতিঃ
১। এজেন্ট আপনার মোবাইল নাম্বার ও অপারেটর নিশ্চিত করে একাউন্ট খোলার জন্য অনুমতি নেবেন।
২। আপনার নাম্বারে পাঠানো রেফারেন্স নাম্বারটি নেবেন।
৩। আপনার জাতীয় পরিচয়পত্রের সামনের ও পেছনের অংশের ছবি তুলবেন।
৪। এজেন্ট ই-কেওয়াইসি এন্ট্রির জন্য আপনার একটি ছবি তুলবেন।
৫। সফল রেজিস্ট্রেশন সম্পন্ন হলে আপনি একটি কনফার্মেশন এসএমএস পাবেন।

এজেন্ট পয়েন্টে কেওয়াইসি ফর্ম পূরণ করে বিকাশ একাউন্ট খুলুন।


নিকটবর্তী এজেন্ট পয়েন্টে বিকাশ একাউন্ট খুলতে নিয়ে আসুন।
১। মোবাইল ফোন।
২। জাতীয় পরিচয় পত্র (মূল এবং ফটোকপি)।
৩। ১ কপি পাসপোর্ট সাইজ ছবি

গ্রাহক সেবায় বিকাশ একাউন্ট খুলুন।


নিকটবর্তী গ্রাহক সেবায় বিকাশ একাউন্ট খুলতে নিয়ে আসুন।
১। মোবাইল ফোন।
২। জাতীয় পরিচয়পত্র (ফটোকপি) / ড্রাইভিং লাইসেন্স (মূল এবং ফটোকপি) / পাসপোর্ট (মূল এবং ফটোকপি)।
৩। ১ কপি পাসপোর্ট সাইজ ছবি

গ্রাহক সেবা কেন্দ্রে বিকাশ একাউন্ট খুলুন।

নিকটবর্তী গ্রাহক সেবা কেন্দ্রে বিকাশ একাউন্ট খুলতে নিয়ে আসুন।
১। মোবাইল ফোন।
২। জাতীয় পরিচয়পত্র (মূল এবং ফটোকপি)/ মূল ড্রাইভিং লাইসেন্স / মূল পাসপোর্ট।
৩। ১ কপি পাসপোর্ট সাইজ ছবি।

একাউন্ট ওপেনিং ফরমটি পূরণ করুন এবং আপনার বৃদ্ধাঙ্গুলির ছাপ ও স্বাক্ষর দিন।

বিকাশ একাউন্ট খোলার পর আপনাকে আপনার বিকাশ মোবাইল মেন্যুটি এক্টিভেট করে নিতে হবে। আপনার মোবাইল মেন্যু এক্টিভেট করতে নিচের পদ্ধতি অনুসরণ করুনঃ

১। *২৪৭# ডায়াল করে বিকাশ মোবাইল মেন্যুতে যান।
২। “ এক্টিভেট মোবাইল মেন্যু” বেছে নিন।
৩। বিকাশ একাউন্টের জন্য ৫ ডিজিটের পিন নম্বরটি প্রবেশ করান
৪। কনফার্ম করার জন্য আপনার পিন নম্বরটি আবার প্রবেশ করান।

আপনার পিন নম্বরটি সব সময় গোপন রাখুন।

সকল প্রক্রিয়া সঠিক ভাবে সম্পন্ন হবার পর আপনার মোবাইল নম্বরটি একটি বিকাশ একাউন্ট নম্বর হিসেবে গণ্য হবে। আপনার বিকাশ একাউন্ট এর মাধ্যমে প্রাথমিক ভাবে মোবাইল রিচার্জ, ক্যাশ ইন এবং টাকা গ্রহণ সেবা ব্যবহার করতে পারবেন। তবে, আপনার KYC ফরম এর তথ্য যাচাই হয়ে গেলে, ৩-৫ দিনের মধ্যে আপনি “ক্যাশ আউট”, “ মোবাইল রিচার্জ “, “পেমেন্ট” এবং বিকাশ এর অন্যান্য সেবা সমূহ উপভোগ করতে পারবেন। আপনার একাউন্টটি সম্পূর্ণভাবে সক্রিয় হওয়ার পর *247# ডায়াল করে দিন রাত ২৪ ঘণ্টা, সপ্তাহে ৭ দিন বিকাশের সেবা ব্যবহার করতে পারবেন। একজন গ্রাহক গ্রাহক সেবা কেন্দ্র অথবা গ্রাহক সেবা থেকে একাউন্ট খুললে সাথে সাথে বিকাশ এর সকল সেবা উপভোগ করতে পারবেন।  ( সুত্র ঃ বিকাশ.কম।)

বিকাশ সার্ভিস সেন্টার।

ঢাকা মহাখালী গ্রাহক সেবা কেন্দ্র - এসকেএস টাওয়ার, নীচ তলা, ৭ ভি আই পি রোড, মহাখালী, ঢাকা-১২০৬

ঢাকা বাংলামোটর গ্রাহক সেবা কেন্দ্র - নাসির ট্রেড সেন্টার, দ্বিতীয় তলা, ৮৯, বীর উত্তম সি আর দত্ত সড়ক, ঢাকা-১২০৫।

ঢাকা যাত্রাবাড়ী গ্রাহক সেবা কেন্দ্র - রোহামা কমপ্লেক্স, গ্রাউন্ড ফ্লোর, ৩১৪/এ/৬, দক্ষিণ যাত্রাবাড়ী, ঢাকা-১২০৪

গাজীপুর গ্রাহক সেবা কেন্দ্র - বাতেন ভবন, দ্বিতীয় তলা, ৪৯৪ বশির সড়ক, জয়দেবপুর, গাজীপুর

টাঙ্গাইল গ্রাহক সেবা কেন্দ্র - বাছেদ খান টাওয়ার, দ্বিতীয় তলা, হোল্ডিং নং ০১১৭-০০, ভিক্টোরিয়া রোড, টাঙ্গাইল

ময়মনসিংহ গ্রাহক সেবা কেন্দ্র - রিভার এজ, দ্বিতীয় তলা, ১০/এ, বিশ্বেশরী দেবী রোড, ময়মনসিংহ (বুড়া পীরের মাজার এর বিপরীতে)

চট্টগ্রাম আগ্রাবাদ গ্রাহক সেবা কেন্দ্র - আগ্রাবাদ সেন্টার, ২৪৭০/এ, চৌমুহনী, নিচ তলা, শেখ মুজিব রোড, চট্টগ্রাম

চট্টগ্রাম মুরাদপুর গ্রাহক সেবা কেন্দ্র - ইসলাম টাওয়ার, নীচতলা, ৫৯ সিডিএ এভিনিউ, মুরাদপুর, চট্টগ্রাম

সিলেট গ্রাহক সেবা কেন্দ্র - জে আর টাওয়ার, দ্বিতীয় তলা, ২৩ আবাস, জেল রোড, সিলেট- ৩১০০

খুলনা গ্রাহক সেবা কেন্দ্র - ইসরাক প্লাজা, দ্বিতীয় তলা, প্লটঃ ৪৩-৪৪, মজিদ সরণী, শিব বাড়ী মোড়, খুলনা

বরিশাল গ্রাহক সেবা কেন্দ্র - রহমত মঞ্জিল কমপ্লেক্স, দ্বিতীয় তলা, গোরাচাঁদ দাস রোড, বটতলা, বরিশাল

রংপুর গ্রাহক সেবা কেন্দ্র - এ জেড টাওয়ার, দ্বিতীয় তলা, ৩৪-৩৫ ষ্টেশন রোড, রংপুর সদর, রংপুর

বগুড়া গ্রাহক সেবা কেন্দ্র - ৩২৪ ঝাউতলা, বড়গোলা, কাজী নজরুল ইসলাম রোড, বগুড়া সদর, বগুড়া

রাজশাহী গ্রাহক সেবা কেন্দ্র - ৬১ চাঁদ সন্স শপিং কমপ্লেক্স, দ্বিতীয় তলা, নিউ মার্কেট, বোয়ালিয়া, রাজশাহী

যশোর গ্রাহক সেবা কেন্দ্র - হাসান ম্যানশন, দ্বিতীয় তলা, এম এম আলি রোড, মাইক পট্টি, যশোর

কুমিল্লা গ্রাহক সেবা কেন্দ্র - রয় কমপ্লেক্স, নীচ তলা, ১১৫/২ নজরুল এভিনিউ, কান্দিরপাড়, কুমিল্লা

ফরিদপুর গ্রাহক সেবা কেন্দ্র - এ এম টাওয়ার, ৩২/১/এ, দ্বিতীয় তলা, চন্দ্রকান্ত রোড, ওয়েস্ট এন্ড পাড়া, গোয়ালচামট, ফরিদপুর - ৭৮০০

বিকাশ হেল্প লাইন নাম্বার।

১৬২৪৭ অথবা ০২-৫৫৬৬৩০০১

(যেকোনো রবি, গ্রামীণফোন, এয়ারটেল, বাংলালিংক, সিটিসেল, টেলিটক এবং টি এন্ড টি নাম্বার থেকে যোগাযোগ করা যাবে। )

ইমেইল: support@bkash.com

বিকাশ অ্যাপস।

বিকাশ অ্যাপস প্লেস্টোর থেকে ডাউনলোড করে নিন। অথবা এই লিংক থেকে ডাউনলোড করতে পারেন।

বিকাশ পিন ভুলে গেলে করনীয়।

প্রথমে *২৪৭# ডায়াল করে অথবা বিকাশ অ্যাপ থেকে নিজেই নতুন পিন রিসেট করে নিতে পারবেন গ্রাহক।

অস্থায়ী পিন এসএমএস-এ পাবার পর বিকাশ অ্যাপে পিন রিসেট করতে লগইন পেজ থেকে ‘পিন ভুলে গিয়েছেন’ বাটনে ট্যাপ করতে হবে। এরপর বিকাশ অ্যাকাউন্ট নম্বর দিতে হবে। পরের ধাপে ওয়ান টাইম পাসওর্য়াড (ওটিপি) এবং অস্থায়ী পিন দিয়ে গ্রাহক নিজের পছন্দ অনুসারে এলোমেলো পাঁচ সংখ্যার নতুন পিন দিয়ে আর একবার রিএন্টার করে সফলতার সাথে পিন রিসেট করে নিতে পারবেন।

ইউএসএসডি চ্যানেলে পিন রিসেট করতে *২৪৭# ডায়াল করে মাই বিকাশ থেকে ‘চেঞ্জ মোবাইল মেন্যু পিন’ নির্বাচন করতে হবে। পরের ধাপে পুরাতন পিন চাইলে অস্থায়ী পিন নম্বরটি দিতে হবে। এরপর গ্রাহক নিজের পছন্দ অনুসারে পাঁচ সংখ্যার নতুন এলোমেলো পিন দিয়ে আর একবার রিএন্টার করে সফলতার সাথে পিন রিসেট করে নিতে পারবেন।

এই আর্টিকেলের সকল তথ্য bKash.com থেকে সংগ্রহীত। বিকাশ গ্রাহকদের সুবিধার কথা মাথায় রেখে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য গুলো এখানে সংক্ষিপ্ত আকারে প্রকাশ করা হলো। ধন্যবাদ bKash.com
Doridro IT

Hello Friends, My Name Is Mohammad Ismail. Welcome To The DoridroIT Website.

আপনার মুল্যবান মন্তব্য করার জন্য ধন্যবাদ।

إرسال تعليق (0)
أحدث أقدم